রাশিয়ার ভ্যাকসিন দিলে আসবে জ্বর!

রাশিয়া প্রেসিডেন্টের দাবি, তারা আবিষ্কার করে ফেলেছে ভ্যাকসিন। বিশেষজ্ঞরা অবশ্য এটি নিয়ে প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছেন। তবে রাশিয়া জানিয়ে দিয়েছে, তাদের এই ভ্যাকসিন নিরাপদ।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিন বলেন, “করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে বিশ্বে প্রথম কোনও ভ্যাকসিন আবিষ্কার হয়েছে। আমার এক মেয়ের শরীরে টিকাটি প্রয়োগ করা হয়েছে। বলা যেতে পারে সেও এই গবেষণায় অংশগ্রহণ করেছে।”
তিনি জানিয়েছেন, এই ভ্যাকসিনের কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই। সামান্য জ্বর আসতে পারে, যেটা তার মেয়ের ক্ষেত্রেও হয়েছে। কিন্তু প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই তা সেরে গিয়েছে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, চিকিৎসার সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তি ও বয়স্কদের আগে এটি দেওয়া হবে। এর আগে রাশিয়ান ডিরেক্ট ইনভেস্টমেন্ট ফান্ডের (আরডিআইএফ) প্রধান ক্রিমিল দিমিত্রিভ জানিয়েছিলেন, স্পুটনিকের মহাকাশ যাত্রা দেখে বিশ্ব চমকে গিয়েছিল। আমেরিকানরা যেমন অবাক হয়েছিল। এবারেও একই ঘটনা ঘটবে। করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন তৈরিতে বিশ্ববাসী অবাক হয়ে রাশিয়ার সাফল্য দেখবে।

রাশিয়ার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় আগেই জানিয়েছিল যে এই ভ্যাক্সিন বিশ্বে সাড়া ফেলবে। উপকার হবে সাধারণ মানুষের। কিন্তু কীভাবে কাজ করবে এই ভ্যাক্সিন। এই সম্পর্কে মস্কোর গ্যামলিয়া রিসার্চ ইনস্টিটিউটের ডিরেক্টর আলেকজান্ডার গিন্টসবার্গ জানান, এই ভ্যাক্সিন কিছু জড় বা নিষ্প্রাণ পার্টিকলস তৈরি করবে।

শরীরের অ্যাডিনো ভাইরাসের উপস্থিতির প্রেক্ষিতে এগুলো তৈরি হবে। সেখান থেকেই তৈরি হবে করোনা ভাইরাসের মোকাবিলা করার মত অ্যান্টি বডি।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*