মৃ’ত্যুর আগে হাসপাতালের বিছানায় শেষ গান গাইলেন করোনা আক্রা’ন্ত তরুণ!!

প্রাণঘা’তী করোনাভাইরাসের কারণে দূর আকাশের তারা হয়ে গেছেন ঋষভ। কিন্তু তাঁর গাওয়া শেষ গান এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাই’রাল। হয়ত এটাই ও চেয়েছিল। তাই হাসপাতালের বিছানায় বসে হাসিমুখে সব যন্ত্রণা গিলে নিয়ে গিটার হাতে শেষবার গেয়ে উঠেছিল ‘আচ্ছা চলতা হু , দুয়া ও মে ইয়াদ রাখনা’।

১৭ বছরের ঋষভ দত্ত ভারতের আসামের তিনসুকিয়ার কাকোপাথারের বাসিন্দা। গত ৯ জুলাই বেঙ্গালুরুর একটি হাসপাতালে করোনায় আক্রা’ন্ত হয়ে তিনি মৃ’ত্যুর কোলে ঢলে পড়েন। ২ বছরের আগে ঋষভ র’ক্তের জ’টিল রোগে আক্রা’ন্ত হয়েছিলেন।

তাঁর র’ক্তের কোষ বিভাজনের প্রক্রিয়া বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। ফলে শরীর ক্রমেই ভে’ঙে পড়তে শুরু করে। প্রয়োজন ছিল বোনম্যারো ট্রান্সপ্ল্যান্ট। সেই প্রক্রিয়া চলছিল। কিন্তু করোনার কারণে সব চেষ্টা বিফলে গেল।
ঋষভের মনের জো’র ছিল প্রবল। শারিরীক কষ্ট চেপে রাখতে হাসপাতালের বিছানায় শুয়েই তিনি গান গাইতেন। ঋষভের শ্রোতা ছিলেন হাসপাতালের সিস্টার, নার্স এমনকি চিকিৎসকরাও।

প্রথমে বেঙ্গালুরুর খ্রিস্টান মেডিকেল কলেজ এবং পড়ে বেঙ্গালুরুরই একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা চলেছে তাঁর। তখন গান গেয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করতে শুরু করে ঋষভ বেশ পরিচিতি পেয়ে যান। ঋষভের মৃ’ত্যুর পর তাঁর গান শুনে অনেকেই চোখের জল ধ’রে রাখতে পারেননি।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*