করোনা টিকার তৃতীয় ধাপের ট্রায়াল শুরু করছে চীন

করোনা ভাইরাসের একটি সম্ভাব্য ভ্যাকসিনের তৃতীয় ধাপের ট্রায়াল শুরুর অনুমতি পেয়েছে চীনের ন্যাশনাল বায়োটেক গ্রুপ। মঙ্গলবার (২৩ জুন) কোম্পানিটির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, সংযুক্ত আরব আমিরাতে করোনা রোগীদের ওপর আগামী সপ্তাহ থেকে এই ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হবে। খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

রয়টার্স জানিয়েছে, চীনে করোনা আক্রান্ত রোগী কমে যাওয়ায় বাইরের দেশকে ট্রায়ালের জন্য বেছে নেয়া হয়েছে। এ পর্যন্ত বিশ্বে বহু দেশে করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিনের ট্রায়াল চলছে। তবে চীনের এই ভ্যাকসিন ছাড়া কোনোটিই এখনো ট্রায়ালের তৃতীয় ধাপে পৌঁছাতে পারেনি।

রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ন্যাশনাল বায়োটেকের তৈরি ভ্যাকসিনের তৃতীয় ধাপের ট্রায়ালে কয়েক হাজার মানুষকে অন্তর্ভুক্ত করা হবে। যাতে এর প্রকৃত অবস্থা বোঝা যায়।
চীনের ন্যাশনাল বায়োটেক গ্রুপ রাষ্ট্রীয় ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানি সিনোফার্মার সঙ্গে সংযুক্ত। এই দুই কোম্পানি করোনার দুটি সম্ভাব্য ভ্যাকসিন তৈরি করেছে। চীনের প্রায় ২ হাজার মানুষের ওপর ওই ভ্যাকসিনগুলোর ট্রায়াল দেয়া হয়েছে।

আন্তর্জাতিক জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডওমিটারের দেয়া তথ্য অনুযায়ী বিশ্বে এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ৯৩ লাখ ৫৩ হাজার৭৩৫ জন। মারা গেছেন ৪ লাখ ৭৯ হাজারের বেশি মানুষ। গত ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে এই প্রাণঘাতী ভাইরাসটির উৎপত্তি হয়।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*